উত্তর কোরিয়ার পরমাণু হামলার হুমকি গুরত্বের সাথে নিয়েছে আমেরিকা

‘কি রিজলভ’ বা ‘ফোল ঈগল’ নামের যৌথ মহড়া শুরুর দিনটিতে আমেরিকা এবং দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে নির্বিচারে পরমাণু বোমা হামলার হুমকি দিয়েছিল উত্তর কোরিয়া।
image
আমেরিকার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জন কিরবি আজ বলেছে, উত্তর কোরিয়া আমেরিকার বিরুদ্ধে পরমাণু বোমা হামলার যে হুমকি দিয়েছে তাকে গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে ওয়াশিংটন। তবে, উত্তর কোরিয়ার হুমকি সত্ত্বেও দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে পূর্ব পরিকল্পিত যৌথ সামরিক মহড়া অব্যাহত থাকবে বলে ঘোষণা করেছে আমেরিকা।

এর আগে ‘কি রিজলভ’ বা ‘ফোল ঈগল’ নামের যৌথ মহড়া শুরুর দিনটিতে আমেরিকা এবং দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে নির্বিচারে পরমাণু বোমা হামলার হুমকি দিয়েছিল উত্তর কোরিয়া।

জন কিরবি পিয়ংইয়ংকে উস্কানি দেয়া থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানায়। কিরবির মতে, উত্তরকোরিয়া উত্তেজনা সৃষ্টি না করলে দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক সক্ষমতা বাড়াতে বাধ্য হতো না আমেরিকা।

প্রসংগত, গতকাল উত্তর কোরিয়ার প্রভাবশালী জাতীয় প্রতিরক্ষা কমিশন দেশটির সুপ্রিম কমান্ড অব দ্যা কোরিয়ান পিপলস আর্মি বা কেপিএ’হুমকি দিয়েছিল, আগ্রাসন এবং যুদ্ধে আগ্রহী শক্তিগুলোকে নির্বিচারে পরমাণু হামলা চালিয়ে উত্তর কোরিয়ার সামরিক শক্তিমত্তা দেখিয়ে দেয়া হবে। বিবৃতিতে আমেরিকা এবং দক্ষিণ কোরিয়ার যৌথ সামরিক মহড়াকে অনুশীলনের নামে পরমাণু যুদ্ধ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, উত্তর কোরিয়া সুইচ টেপা মাত্রই শত্রুরা নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে, শত্রুরা আগুনের সমুদ্রে ঢেকে যাবে এবং মুহূর্তের মধ্যেই ছাইয়ে পরিণত হবে।









Leave a Reply