গ্রিসের কেন্দ্রীয় ব্যাংক বন্ধ, অর্থ উত্তোলনে নিয়ন্ত্রন

সিপারাস

গ্রিসের কেন্দ্রীয় ব্যাংক এর সাথে ইউরোপীয়ান সেন্ট্রাল ব্যাংক যোগাযোগ বন্ধ রেখেছ। তারই ফলস্রুতিতে গ্রিসের কেন্দ্রীয় ব্যাংক তাদের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করে গ্রাহকদের অর্থোত্তলেনর উপর কড়া নিয়ন্ত্রন আরোপ করেছে।
তবে আগামী ৫ই জুলাই এ গ্রিসে অনুষ্ঠিতব্য গণভোটকে ব্ল্যাক-মেইল করতেই ইউরোগ্রুপের এই কারসাজি, বললেন গ্রিস প্রধানমন্ত্রী অ্যালেক্সিস সিপ্রাস ইউরোপের কেন্দ্রীয় ব্যাংক যখন গ্রিসের জরুরী অর্থসেবা বাড়ানো মুলতবি ঘোষনা করলো সেদিন সিপ্রাস এই কথা বলেন।
শনিবারে গ্রিস এবং ইউরোপীয় পাওনাদারদের (ইউরোপিয়ান কেন্দ্রীয় ব্যাংক, আই এম এফ) মধ্যকার আলোচনা কোনরকম সিন্ধান্ত গ্রহন ছাড়াই শেষ হয়। এদিকে গ্রিস পার্লামেন্টে পাস হওয়া ৫ই জুলাইতে অনুষ্ঠিতব্য গণভোটের মধ্যদিয়ে ভোটাররা সিদ্ধান্ত নেবেন তারা পাওনাদারদের দেয়া শর্ত মেনে নেবেন কি না। ইউরোপ দাবী করছে গ্রিস আলোচনার দরজা বন্ধ করতে চাইছে। গ্রিসের বর্তমান বেইল আউট প্রোগাম শেষ হবে ৩০শে জুন, এবং একই দিনে গ্রিসকে তাদের সবচেয়ে বড় পাওনাদার আন্তর্জাতিক অর্থ তহবিল বা আইএমএফ কে ১.৭ বিলিয়ন ডলার পরিশোধ করতে হবে। অন্যথায় গ্রিসকে অর্থনৈতিকভাবে ডিফল্ট ঘোষনা করে ইউরোজোন থেকে আলাদা হয়ে যেতে হতে পারে।

Leave a Reply