চীন পৃথিবীর বৃহত্তম টেলিস্কোপের নির্মাণ কাজ শুরু করেছে

চীনে প্রায় ২০ বছর ধরে যে রেডিও টেলিস্কোপ স্থাপনের পরিকল্পনা চলছিল সেটি স্থাপনের কাজ শুরু হয়েছে।
6a00d8341bf7f753ef01bb08bd948b970d-800wi

নির্মাণাধীন এই টেলিস্কোপ ফাইভ হানেড্রেড-মিটার অ্যাপারচার স্পেরিক্যাল টেলিস্কোপ বা ‘ফাস্ট’ নামে পরিচিত।

চীনা অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সোসাইটির মহাপরিচালক জিয়ান্গ্পিং বলেছে-

“ ‘ফাস্ট’ বিশ্বের প্রথম একক রন্ধ্র বিশিষ্ট টেলিস্কোপ যার মাধ্যমে মহাকাশের দূর নক্ষত্রে বসবাসকারী এলিয়েন দের সিগনাল পাওয়া যাবে।“

চীনের জাতীয় মানমন্দির কেন্দ্র তথ্য দিয়েছে যে, পুর্টো রিকোর আরেসিবো মানমন্দির বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে বড় দুরবিন। কিন্তু ‘ফাস্ট’ আকারে এরচেয়ে দ্বিগুণ বড় হবে বলে জানানো হয়েছে। এ ছাড়া এ দুরবিনে মহকাশের যতোটুকু এলাকা খতিয়ে দেখা যায়, ‘ফাস্ট’ দিয়ে তার চেয়েও দ্বিগুণ এলাকা দেখা যাবে। আর বেতার তরঙ্গ ধারণের ক্ষেত্রে আরেসিবো মানমন্দিরের দুরবিনের চেয়েও তিন থেকে পাঁচগুণ বেশি স্পর্শকাতর হবে চীনা দুরবিন।

এটি একটি বৃত্তাকার টেলিস্কোপ যার ব্যাস ৩০৫ মিটার (১০০০ ফিট ) ! পৃথিবীর বৃহত্তম দুরবিনটি বসানো হবে গুইঝৌ এর দক্ষিন – পশ্চিম পাহাড়ি অঞ্চলে।

এই রেডিও টেলিস্কোপ যেহেতু সুদূরের বিভিন্ন গহবরের সিগনাল ধারণ করবে তাই এর আসেপাসে ৫ কিলোমিটারের ভেতরে কোনো জনবসতি থাকা যাবেনা। এই কারণে পিনটা ও লুওদিয়ান এলাকার প্রায় ২ হাজার টি পরিবারকে অন্যত্র বসতি সরিয়ে নিতে বলা হয়েছে।

যেসব পরিবারকে বসতি সরিয়ে নিতে বাধ্য করা হলো তাদের প্রত্যেককে ১৮০০ ডলার করে দেওয়া হবে।









Leave a Reply