সিরিয়ায় সৌদি সেনা মোতায়েনের আগে রাশিয়া প্রয়োজনীয় তথ্য চায়

এই অভিযান চালানোর অনুমতি তাদের কে দিয়েছে সেটি এখন কৌতুহলের বিষয় হয়ে দাড়িয়েছে ! অর্থাৎ সিরিয়ার বা জাতিসংঘের অনুমতি ছাড়াই এ অভিযান শুরু করতে যাচ্ছে সৌদিআরব।
4bhgfb889a5a70q5e_620C350

গতকাল রাশিয়ার উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী মিখাইল বোগদানোভ সৌদিআরবের সিরিয়ায় সেনা মোতায়েনের পূর্বে সে সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্যাদি পেশ করতে হবে বলে জানিয়েছে ।

‘সৌদি আরবের এ সিদ্ধান্তের সুনির্দিষ্ট কোনো ভিত্তি সম্পর্কে মস্কো অবগত নয় ‘ – বলে মিখাইল সঙ্কা প্রকাশ করেছে । তার মতে যেহেতু সিরিয়া একটি সার্বভৌম দেশ তাই সে সংক্রান্ত যে পরিকল্পনাই করা হোকনা কেন তা দেশটির সরকার এবং একই সাথে জাতিসংঘের সঙ্গে সমন্বয় সাধন করেই করতে হবে । সে আরো বলেছে, দেশটির শক্তিশালী কেন্দ্রীয় সরকার আছে ,কাজেই যে কোনো সামরিক তৎপরতা চালাতে হলে অবশ্যই ক্ষমতাধীন সরকারের সাথে যুক্ত হয়েই করতে হবে।

প্রসংগত,গত বৃহস্পতিবার, ৪ঠা ফেব্রুয়ারী সৌদি প্রতিরক্ষামন্ত্রীর উপদেষ্টা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আহমাদ আনসারি সৌদি মালিকানাধীন আল-আরাবিয়া টেলিভিশন চ্যানেলকে দেয়া বক্তৃতায় বলেছে – সিরিয়ায় সন্ত্রাস-বিরোধী অভিযানে জড়িত আমেরিকার নেতৃত্বাধীন জোট যদি স্থল অভিযানের সিদ্ধান্ত নেয় তবে তাতে সেনা পাঠাতে সৌদি আরব প্রস্তুত রয়েছে।

তবে এই অভিযান চালানোর অনুমতি তাদের কে দিয়েছে সেটি এখন কৌতুহলের বিষয় হয়ে দাড়িয়েছে ! অর্থাৎ সিরিয়ার বা জাতিসংঘের অনুমতি ছাড়াই এ অভিযান শুরু করতে যাচ্ছে সৌদিআরব।

সিরিয়ায় সৌদিআরবের ভিত্তিহীন সেনা অভিযান মেনে নিতে নারাজ রাশিয়া , প্রয়োজনীয় তথ্য প্রেরণের নিমিত্তে রিয়াদের প্রতি রুশ উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী মিখাইল বোগদানোভ এর আহ্বান।









Leave a Reply